post: 07(ভেরিয়েবল বা চলক)


Q. চলক কাকে বলে?

Ans: C programming এ কোনো ডেটা save করার জন্য মেমরির একটি নাম দিতে হয় এই নামকে variable (চলক) বলে।

Q. চলক ঘোষণার সিনটেক্স বা গঠন দেখাও।

চলক ঘোষণায় দুটি প্রধান অংশ থাকে। প্রথমটি হলঃ data_type এবং দ্বিতীয়টি হল var_name অর্থাৎ চলকের নাম। একটি সেমিকলনের (😉 মাধ্যমে চলক ঘোষণা শেষ হবে। চলক ঘোষণার

সিনটেক্স-1: data_type var_name;

কিন্তু প্রোগ্রামে বেশিরভাগ সময় একাধিক চলক ব্যবহার করতে হয় বলে একাধিক চলক ঘোষণার
প্রয়োজন হয়। একাধিক চলক একসাথে নিম্নরূপে ঘোষণা করা যায়।
চলক ঘোষণার

সিনটেক্স-2: data_type var_1, var_2, var_3,… , var_n;

সিনটেক্স-3: data_type var_name [value];

এখানে, data_type দিয়ে ডাটার ধরণ যেমন integer, float, char ইত্যাদি নির্দেশ করে। var_name অথবা var_1, var_2, var_3, … , var_n ইত্যাদির পরিবর্তে চলকের নাম দিতে হবে। কয়েকটি উদাহরণের মাধ্যমে উপরের সিনটেক্স তিনটির ব্যাখ্যা করা হল।

Ex-1:
int roll; (সিনটেক্স-1)

এখানে int দিয়ে data type অর্থাৎ ডাটার ধরণ এবং roll হল ভেরিয়েবল নেম বা চলকের নাম বুঝায়।

Ex-2:
float num_1, num_2; (সিনটেক্স-2)

এখানে float দিয়ে data type অর্থাৎ ডাটার ধরণ এবং num_1, num_2 হল দুটি চলকের নাম বুঝায়।

Ex-3:
int x, s=0; (সিনটেক্স-3)

উপরের উদাহরণটিতে x, s নামক দুটি চলক যা integer type data অর্থাৎ পূর্ণসংখ্যার ডাটা সেভ করতে পারবে এবং s=0 দিয়ে s নামক চলকে 0 সেভ করা হয়েছে।

Q. চলকের নাম লিখার পাঁচটি নিয়ম লিখ।

১। চলকের নামে যেকোনো ক্যারাক্টার বা অক্ষর ব্যবহার করা যায়, তবে প্রথম অক্ষর অবশ্যই সংখ্যা
হতে পারবে না।

২। চলকের নামে বিশেষ ক্যারাক্টার যেমন (#, @, &, +, _, <, >, ? ইত্যাদি) এবং punctuation character বা যতি চিহ্ন (, . ইত্যাদি) ব্যবহার করা যাবে না।

৩। চলকের নামের মধ্যে কোনো খালি যায়গা বা স্পেস ব্যবহার করা যাবে না। তবে একাধিক
শব্দকে
underscore ( _ ) দিয়ে যুক্ত করা যায়।

৪। চলকের নামে কোনো keyword যেমন (integer, do, while, for, continue, break, auto, if,
else ইত্যাদি) ব্যবহার করা যাবে না।

৫। চলকের নামে যেকোনো সংখ্যক ক্যারাক্টার ব্যবহার করা যায়। তবে ৩১ টি ক্যারাক্টার এর
বেশি ব্যবহার না করাই ভাল।

Q. বিভিন্ন প্রকার চলক উদাহরণসহ আলোচনা কর।

Ans: চলক প্রধানত দুই প্রকার যথা – ১। সংখ্যাসূচক চলক ২। স্ট্রিং চলক

১। সংখ্যাসূচক চলকঃ এই ধরণের চলকের সাহায্যে মেমরিতে বিভিন্ন ধরণের সংখ্যা প্রেরণ করা
হয়ে থাকে। এর মান প্রোগ্রাম চালানোর সময় পরিবর্তন করা যায়।

২। স্ট্রিং চলকঃ এই ধরণের চলকের সাহায্যে মেমরিতে বিভিন্ন ধরণের স্ট্রিং অর্থাৎ
অক্ষরমালা (
a group of letter or a group or word is called string) প্রেরণ করা হয়ে থাকে।

অবস্থানের ভিত্তিতে চলক দুই প্রকার। যথা- (ক) লোকাল ভেরিয়েবল বা লোকাল চলক (খ) গ্লোবাল
ভেরিয়েবল বা গ্লোবাল চলক

(ক) লোকাল ভেরিয়েবল বা লোকাল চলকঃ যে সকল চলকের ব্যবহার একটি ফাংশনের ভিতরে সীমাবদ্ধ থাকে তাকে লোকাল চলক বলা হয়। এই ধরণের চলকের ঘোষণা ফাংশনের ভিতরেই হতে হয়। যেমন-

void
main ()

{

int x,y;

}

এখানে x, y হচ্ছে লোকাল চলক কারণ এদের ব্যবহার কেবলমাত্র main () ফাংশনের মধ্যে সীমাবদ্ধ।

(খ) গ্লোবাল ভেরিয়েবল বা গ্লোবাল চলকঃ যে সকল চলকের ব্যবহার একটি নির্দিষ্ট ফাংশানে না থেকে যেকোনো ফাংশনেই হতে পারে তাকে গ্লোবাল চলক বলা হয়। এ ধরণের চলকের ঘোষণা main () ফাংশনের পূর্বেই হতে হয়।

int
x;

void
main ()

{
int a,b;

}

এখানে x হচ্ছে গ্লোবাল চলক এবং a, b হচ্ছে লোকাল চলক। কারণ x চলকটি যেকোনো ফাংশনেই ব্যবহার করা যাবে অপরদিকে a, b চলকদ্বয়ের ব্যবহার কেবলমাত্র main () ফাংশনেই সীমাবদ্ধ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.